তাজা খবর:

শহীদদের সম্মানে ৩০ লাখ গাছ লাগানো হবে                    সহঅবস্থান বজায় রাখার অঙ্গীকার করলেন বরিশালের নৌকার প্রার্থীর                    বগুড়ায় আহত রোগীকে গ্রেফতারের ঘটনায় বিক্ষোভ, পুলিশের লাঠিচার্জ                    চট্টগ্রামে মা ও মেয়ের লাশ উদ্ধার                    সৈয়দপুরে দিনের বেলায় গলাকাটা লাশ উদ্ধার                    আবারো অশান্ত হয়ে উঠেছে খাগড়াছড়ি আজও একজন খুন                    মুন্সীগঞ্জে স্পিডবোট উল্টে জনপ্রতিনিধি নিহত, নিখোজ ১                    খাগাড়ছড়ির মাটিরাঙ্গায় প্রতিপক্ষের গুলিতে জেএসএস কর্মী নিহত                    মেঘনায় গোসলে নেমে নিখোঁজ নটরডেমের দুই শিক্ষার্থী                    ঘুমের ওষুধ খাইয়ে মেয়েকে ‘ধর্ষণ’, বাবা গ্রেপ্তার                    
  • সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮, ৩১ আষাঢ় ১৪২৫

ডিম পচা কিনা, না ফাটিয়ে যেভাবে বুঝবেন

ডিম পচা কিনা, না ফাটিয়ে যেভাবে বুঝবেন

দোকান থেকে ডিম কিনে আনলেন। তারপর সিদ্ধ করে ডিমের একটা তরকারি বানিয়েও ফেললেন।

ঘটনায় চাঞ্চল্যকর মোড়! অভিনেত্রীকে গাড়ি নিয়ে তাড়া

ঘটনায় চাঞ্চল্যকর মোড়! অভিনেত্রীকে গাড়ি নিয়ে তাড়া

মাঝ রাস্তায় সায়ন্তিকাকে হেনস্তা! মামলায় নয়া মোড়! ঘটনার সূত্রে পৌঁছতে অভিনেতা সঞ্জয় মুখোপাধ্যায় ওরফে জয়কে

দাঁতের জন্য ভাল-মন্দ খাবার বলতে কি কিছু আছে?

দাঁতের জন্য ভাল-মন্দ খাবার বলতে কি কিছু আছে?

কিভাবে দাঁত ভাল রাখা যায় তা নিয়ে অনেকেই অনেক কথা বলেন। কেউ বলেন

প্রয়োজনে অন্যদের সাথে শুতে পারো, তবু ডিভোর্স দিও না`

প্রয়োজনে অন্যদের সাথে শুতে পারো, তবু ডিভোর্স দিও না`

আধুনিক ভারতীয় নারীদের চিন্তাভাবনা-বিবেচনা নিয়ে শুরু হয়েছে বিবিসি হিন্দির বিশেষ ধারাবাহিক প্রতিবেদন ‘হার

`পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়া থেকে বাংলার নায়ক হওয়া অনেক ভাল`

এফএনএস (গোলাম মোস্তাফা; নেছারাবাদও স্বরূপকাঠি, পিরোজপুর)

08 Mar 2018   07:12:27 PM   Thursday BdST
A- A A+ Print this E-mail this
 `পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়া থেকে বাংলার নায়ক হওয়া অনেক ভাল`

উত্তপ্ত পরিবেশে যখন স্বাধিকার আন্দোলন এবং রাজনৈতিক পরিস্থিতির পুরো নেতৃত্ব জাতীয়তাবাদী শক্তির নিয়ন্ত্রণাধীন তখন মজলুম জননেতা মওলানা আব্দুস হামিদ খাঁন ভাসানী একাত্তরের ৯ মার্চ ঢাকায় পল্টন ময়দানে এক জনসভায় ভাষণ দিলেন। আন্দোলনের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে তিনি বললেন........ “ একদিন ভারতের বুকে নির্বিচারে গণহত্যা করিয়া জালিয়ানওয়ালাবাগের মর্মান্তিক ইতিহাস রচনা করিয়া অত্যাচার অবিচারের বন্যা বহাইয়া দিয়াও প্রবল পরাক্রমশালী ব্রিটিশ সরকার শেষ রক্ষায় সক্ষম হয় নাই। শেষ পর্যন্ত তাদের শুভবুদ্ধির উদয় হইয়াছিল। পাক-ভারত উপমহাদেশকে শত্রুতে পরিণত না করিয়া সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যরে মধ্যে একদিন সূর্য অস্ত যাইত না, রূঢ় বাস্তবের কষাঘাতে সে সা¤্রাজ্যের সূর্য আজ অস্তমি।...প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়াকেও তাই বলি, অনেক হইয়াছে, আর নয়। তিক্ততা বাড়াইয়া আর লাভ নাই। “লা-কুম দ্বীনুকুম অলইয়াদ্বীন-এর (তোমার ধর্ম তোমার, আমার ধর্ম আমার) নিয়মে পূর্ব বাংলার স্বাধীনতা স্বাকার করিয়া লও। ...মুজিবের নির্দেশ মতো আগামী ২৫ তারিখের মধ্যে কোনো কিছু করা না হইলে আমি শেখ মুজিবুর রহমানের সহিত মিলিত হইয়া ১৯৫২ সালের ন্যায় তুমুল আন্দোলন শুরু করিব। খামোকা কেহ মুজিবকে অবিশ^াস করিবেন না, মুজিবকে আমি ভালো করিয়া চিনি।” তবে প্রবীণ জননেতা মওলানা ভাসানীর ৯ মার্চের বক্তব্য বিলম্বে হলেও প্রগতিশীল কর্মীদের চিন্তাধারায় বিভ্রান্তির কিছুটা অবসান ঘটাতে সক্ষম হয়েছিল।(এম আর আখতার মুকুল এর আমি বিজয় দেখেছি বইয়ের পৃঃ-৩৩২/৩৩৪)। তাই গণমানুষ শেখ মুজিবের উপর আস্তারেখে সংগামী বাস্তবতার পর ৯ মার্চ সকাল থেকেই পশ্চিম পাকিস্তানিদের অত্যাচার- নির্যাতন থেকে সারা দেশের নাগরিক জীবনে আবার স্বাভাবিক তৎপরতায় ফিরে আসলেও এদিন ঢাকা মহানগরী ছিল মিছিল ও সমাবেশে উত্তাল। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে সর্বাত্মক অসহযোগে স্তব্ধ হয়ে পড়ে গোটা প্রশাসন। স্বাধিকার আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী সচিবালয়ের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি অফিস, বাণিজ্যিক ব্যাংক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,হাইকোর্ট, জেলকোর্ট, সুপ্রিমকোর্টসহ বিভিন্ন অফিস আদালতে সর্বত্র শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল পালিত হয়। ৭১-এর মার্চের প্রতিটি দিন যাচ্ছিল বীর জনতার একেকটি নতুন ইতিহাস রচনার মাস। ৭১-এর অগ্নিঝরা ৯ মার্চে মজলুম জননেতা মাওলানা আবদুল হামিদ খাঁন ভাসানী পল্টন ময়দানে ন্যাপের বিশাল জনসভায় ২৫ মার্চের মধ্যে বাংলার স্বাধীনতা দেয়ার জন্য প্রেসিডেন্ট জেনারেল ইয়াহিয়া খানের প্রতি কঠিন ভাষায় আহ্বান জানান। পল্টনের জনসভায় সভাপতি মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানী ঘোষণা দেন,Ñ ‘বর্তমান সরকার যদি আগামী ২৫ শে মার্চের মধ্যে আপোষে পূর্ব-বাংলার স্বাধীনতা না দেয়, তাহলে বায়ান্ন সালের মতো শেখ মুজিবের সঙ্গে একযোগে বাংলার মুক্তি সংগ্রাম গড়ে তুলবো’। ১৯৭১ সালের ১০ মার্চ দৈনিক আজাদের প্রধান শিরোনাম ছিল, পল্টনের জনসমুদ্রে মওলানা ভাসানীর ঐতিহাসিক ঘোষণা, মুজিবের সহিদ একযোগে মুক্তি সংগ্রাম করিব। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে উদ্দেশ করে ভাসানী বলেন, ‘ওদের সাথে আলোচনা করে কিছু হবে না। ওদের আসসালামু আলাইকুম জানিয়ে দাও।-------পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়া থেকে বাংলার নায়ক হওয়া অনেক ভাল। আমরা প্রধানমন্ত্রী হতে যাব না, কারও বাপের শক্তি নাই স্বাধীনতা ঠেকাবে’। তিনি বলেন, ৭ মার্চের শেখ মুজিবের ভাষণকে কেই উপেক্ষা করবে না, এ ভাষণে রাজনৈতিক অনেক শিক্ষানীয় বিষয় রয়েছে, মুক্তিযোদ্ধের পক্ষে তা অক্ষরে-অক্ষরে পালন করিবে। পাকিস্তানিদের উদ্দেশ্য মওলানা ভাসানী বলেন, আর গুলি চালিয়ে লাভ নাই। আমেরিকার ষড়যন্ত্রে ইন্দোনেশিয়া  ১৭ লাখ মানুষকে হত্যা করে সমুদ্রের পানি লাল করেছ। কিন্তু সেখানেই শেষ নয়, রক্তের পুরস্কার হাসিল তারা করবেই। ৭ কোটি মানুষকে হত্যা করা যাবে না। ৭ কোটি মানুষের মুক্তির দাবি দাবিয়ে রাখা যাবে না। জনসভায় তিনি বলেন, জালেমের জুুলুম যে বরণ করে,সে-ও মহাপাপী। জালেমের সহিদ কোনো আপস নেই’। পল্টন ময়দানে জনতার উদ্দেশ্য ভাসানী আরো বলেন, ‘ভাসানীকে তোমরা নয়নমণি আর চোখের মণি, যাহাই বলো না কেন, এবার আপোষের পথে পা বাড়াইলে রান আস্ত থাকিবে না। একইভাবে শেখ মুজিবকেও বঙ্গবন্ধু বলো, আর যাই বলোÑ সেও আপোষ করিলে জনতা ক্ষমা করিবে না’। তিনি বলেন,‘ মুজিব আমার ছেলের মতো। মুজিবকে তোমরা অবিশ^াস করিও না। তাহার ওপর অনেক ভরসা। মুজিবকে আমি আপন সন্তান অপেক্ষাও বেশী ¯েœহ করি’। এ সময় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা ৭ মার্চের ভাষণে শেখ মুজিবের ঘোষিত ক্ষমতা হস্তান্তরসহ ৭ দফা দাবি বাস্তবায়নের পক্ষে বিবৃতি দেন। এ জনসভায় বক্তব্যে জাতীয় লীগ সভাপতি ও পূর্ব বাংলার সাবেক আওয়ামী লীগদলীয় মূখ্যমন্ত্রী আতাউর রহমান খাঁন অবিলম্বে ‘বাংলায় জাতীয় সরকার’ গঠনের জন্য আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘বাঙালির আজ আর কোনো দাবি নাইÑবাঙালি চায় স্বাধীনতার মুক্তির স্বাদ’। জনসভার আগে মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর সঙ্গে ২৭ মিনিট টেলিফোনে আলোচনা করেন আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ মুজিবুর রহমান। ৯ মার্চ ঢাকা বিশ^বিদ্যায়ের সার্জেন্ট জহুরুল হক (ইকবাল) হল ক্যান্টিনে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সংসদের জরুরি সভায় গৃহীত স্বাধীন বাংলাদেশ ঘোষণার প্রস্তাব অনুমোদন এবং আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ মুজিবুর রহমানকে বাংলাদেশের জাতীয় সরকার গঠনের অনুরোধ করা হয়। বাংলার সার্বিক স্বাধীকার প্রতিষ্ঠা ও মুক্তির জন্য শেখ মুজিবুর রহমানের আহূত অসহযোগ আন্দোলনের দ্বিতীয় দিনে ঢাকায় সরকারি, আধাসরকারিসহ ও সব আদালতের কর্মচারীরা কাজে যোগ দেয়া বিরত থাকেন এবং বাসা-বাড়িসহ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ও যানবাহনগুলোতে কালো পতাকা উত্তোলন অব্যাহত রাখা হয়।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
 
A- A A+ Print this E-mail this
আপনার পছন্দের এলাকার সংবাদ
পড়তে চাই:
Fairnews24.com, starting the journey from 2010, one of the most read bangla daily online newspaper worldwide. Fairnews24.com has the highest journalist among all the Bangladeshi newspapers. Fairnews24.com also has news service and providing hourly news to the highest number of online and print edition news media. Daily more then 1, 00,000 readers read Fairnews24.com online news. Fairnews24.com is considered to be the most influencing news service brand of Bangladesh. The online portal of Fairnews24.com (www.fairnews24.com) brings latest bangla news online on the go.
৪৮/১, উত্তর কমলাপুর, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০
ফোন : +৮৮ ০২ ৯৩৩৫৭৬৪
E-mail: info@fns24.com
fnsbangla@gmail.com
Maintained by : fns24.net