তাজা খবর:

বরিশাল ঘুষ গ্রহণকালে পেশকার আটক                    যশোরের মোটর মেকানিক মিজান দেশসেরা আবিষ্কারক                    চরভদ্রাসনে রাস্তা মেরামতের ৩ মাসে ধ্বস যানচলাচল বন্ধ                    রাজশাহীর পদ্মা প্রতিনিয়ত মরা খালে পরিণত হচ্ছে                    চাটমোহরে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ১                    হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট দিয়ে দেশে ফিরলো ১৫ শিশু-কিশোর                    কাউনিয়ায় ট্রেনে কাঁটা পড়ে বৃদ্ধের মৃত্যু                    ভূঞাপুরে বিদ্যুতপৃষ্ঠ হয়ে যুবকের মৃত্যু                    বাঘায় স্বামী-স্ত্রীর লাশ উদ্ধার                    গোদাগাড়ীতে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে, নিহত ৩                    
  • শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১ পৌষ ১৪২৪

গাংনীতে অস্ত্র ও গুলি সহ চাঁদাবাজ গ্রেফতার

গাংনীতে অস্ত্র ও গুলি সহ চাঁদাবাজ গ্রেফতার

 মেহেরপুরের গাংনীতে অস্ত্র ও গুলি সহ জুয়েল হোসেন (৩৫) নামের এক চাঁদাবাজ কে

মুক্তাগাছায় বন্ধুদের ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র নিহত

মুক্তাগাছায় বন্ধুদের ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র নিহত

 মুক্তাগাছায় বন্ধুদের ছুরিকাঘাতে এক স্কুল ছাত্র নিহত হয়েছে। গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে

১১ মিলিয়ন ডলার উপার্জন করল ছয় বছরের শিশু!

১১ মিলিয়ন ডলার উপার্জন করল ছয় বছরের শিশু!

অনলাইনে অর্থ উপার্জনের বিষয়টি নিয়ে অনেকেই চেষ্টা করেন। কিন্তু এ কাজটিতে সবাই যেমন সফল হতে

মাংশের টুকরোত আল্লাহর নাম

মাংশের টুকরোত আল্লাহর নাম

কোন কাল্পনিক গল্প নয়, অবিশ্বাস্য হলেও সত্য পাবনার আটঘরিয়ায় কোরবানির মাংশের একটি টুকরোও

কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে এসএসসি ফল বিপর্যয় : পাশের হার ৫৯.০৩%

এফএনএস (মোঃ হাবিবুর রহমান খান; কুমিল্লা) :

04 May 2017   03:52:16 PM   Thursday BdST
A- A A+ Print this E-mail this
 কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে এসএসসি  ফল বিপর্যয় : পাশের হার ৫৯.০৩%

কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের এসএসসি স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় পাশের হার ৫৯ দশমিমক ০৩ শতাংশ। এর মধ্যে  জিপিএ -৫ পেয়েছে ৪ হাজার  ৪শ ৫০জন। গত ৫ বছরের  ফলাফল বিশ্লেষণে এ বছর কুমিল্লা বোর্ডে ফলাফল বিপর্যয় ঘটেছে। ৫ বছরের তুলনায় ফেল করেছে শতকরা ৩৫ শতাংশ। এবারে মোট ১ লাখ ৮২ হাজার ৯’শ ৭৯ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। উর্ত্তীর্ণ হয় ১ লাখ ০৮ হাজার ১১ জন। জিপিএ ৫ পেয়েছে ছেলেরা ২ হাজার ২৯৭ জন ও মেয়েরা ২ হাজার ১৫৩ জন জিপিএ ৫ পেয়েছে। এ বছর এ বোর্ডে পাশের হার মাত্র ৫৯ দশমিক ০৩।  কুমিল্লা বোর্ডে ইংরেজীতে ফেল করেছে ২৫ হাজার ৬০৬জন। সবচেয়ে বেশী ফেল করেছে গণিতে ৩৪ হাজার ৬৮৯জন শিক্ষার্থী। মানবিক  ৫৪ হাজার ৯৫৭ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাস করেছে ২২ হাজার ৬০৯ জন। ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে পাসের হার ৮০ হাজার ৯৩১ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৪৫ হাজার ৭৭১ জন। এ বছর ১ হাজার ৬৯৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শতভাগ পাস করা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা মাত্র ১৪টি এবং ২টি প্রতিষ্ঠানে কেহই পাশ করেনি। এগুলো হলো কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কেজি আহমেদ গালস্ হাই স্কুলের ২৯জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়ে  সবাই ফেল করেছে। একই অবস্থা একই উপজেলার পায়ের খোলা আর এম বিআর গালস্ হাই স্কুলে। সে বিদ্যালয়টিতে ৩২জন ছাত্র-ছাত্রী পরীক্ষা দিয়ে একজনও পাশ করেনি। তবে কুমিল্লা বোর্ডে শতকরা পাশ করেছে ১৪টি বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী। গতকাল বৃহস্পতিবার কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কায়সার আহমেদের ঘোষিত ফলাফল থেকে এ তথ্য জানা গেছে।
জানা যায়-  এবার ছেলে পাশের হার ৫৯ দশমিক ৫১ শতাংশ এবং মেয়ে পাশের হার ৫৮ দশমিক ৬৩ শতাংশ। গত বছর এ বিভাগে পাশের হার ছিল ৯২ দশমিক ৯৯ শতাংশ। মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ৪’শ ৫০ জন। মানবিক বিভাগে পাশের হার ৪১ দশমিক ১৪ শতাংশ। এর মধ্যে ছেলেদের পাশের হার ৩৬ দশমিক ৭০ শতাংশ এবং মেয়েদের পাশের হার ৪২ দশমিক ৪৫ শতাংশ। এ বিভাগে ছেলেদের ফলাফল বিপর্যয় হয়েছে। গত বছর এ বিভাগে পাশের হার ছিল ৭৪ দশমিক ৯০ শতাংশ।  জিপিএ-৫ মেয়েদের তুলনায় ছেলেরা এগিয়ে রয়েছে। ৫ বছরের ধারাবাহিকতায় ছেলেরাই এগিয়ে রয়েছে।  যা গতবারের তুলনায় অনেক কম। গণিত ও ইংরেজি বিষয়ের ফলাফল খারাপ হওয়ায় পাশের হারে ধস নেমেছে বলে জানা যায়।  বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা ভাল ফলাফল করলেও ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীদের ফলাফলে ধস নেমেছে। এদিকে গণিত ও ইংরেজি প্রশ্ন মান সম্পন্ন হয়নি এমনই অভিযোগ ছাত্র-ছাত্রীদের। গণিত ও ইংরেজীতে পাঠ করার মত ভালো শিক্ষকের অভার কুমিল্লায়। তার চেয়ে বেশী শিক্ষক বিদ্যালয় ম্যানেজিয় কমিটির আন্তরিকতার অভাব। শিক্ষার্থীদের গুনগত মান নির্ণয় করতে গিয়েই কুমিল্লা বোর্ডের এ ফলাফলের বিপর্যয় ঘটেছে বলে বলছেন শিক্ষকেরা। এ বোর্ডে পাশের হারের দিক থেকে ছেলেরা এগিয়ে রয়েছে।
বোর্ড সূত্রে জানা যায়- কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হার ৫৯ দশমিক ০৩ শতাংশ। গতবারের তুলনায় এবার পাসের হার ও জিপিএ ৫ প্রাপ্তির সংখ্যা কমেছে। গতবার ৯ হাজার ৯৬৪ জন জিপিএ ৫ পেয়েছে। এবার ৪ হাজার ৪৫০ জন জিপিএ৫ পেয়েছে। কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডে চলতি বছরের মাধ্যমিক (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হার ৫৯ দশমিক ০৩ শতাংশ।  কুমিল্লা বোর্ডের অধীনে ফেনী, লক্ষ্মীপুর, নোয়াখালী, চাঁদপুর, ব্রাহ্মণণবাড়িয়া ও কুমিল্লাসহ ৬টি জেলায় ১ লাখ  ৬০ হাজার ৫১৭ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।
ফলাফল তথ্যে জানা যায়- কুমিল্লা বোর্ডে  পাশের হারের দিক থেকে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা এগিয়ে রয়েছে। এ বিভাগে পাশের হার ৮৪ দশমিক ১৬।
কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকশিক্ষাবোর্ডের প্রকাশিত ফলাফলে দেখা গেছে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৮০৬ জন পরীক্ষার্থীর মাঝে পরীক্ষায় অংশ নেয় ১ লাখ ৮২ হাজার ৯৭৯ জন। উত্তীর্ণ হয় ১ লাখ ০৮ হাজার ১১ জন। বিজ্ঞাণ বিভাগে পরীক্ষার্থী ছিল ৪৭ হাজার ৯১ জন,উত্তীর্ণ হয় ৩৯ হাজার ৬’শ ৩১ জন। মানবিক বিভাগে পরীক্ষার্থী ছিল ৫৪ হাজার ৯’শ ৫৭ জন, উত্তীর্ণ হয় ২২ হাজার ৬’শ ০৯ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে পরীক্ষার্থী ছিল  ৮০ হাজার ৯’শ ৩১ জন, উত্তীর্ণ হয় ৪৫ হাজার ৭’শ ৭১ জন। তিনটি বিভাগ থেকে শতকরা পাশের হার যথাক্রমে ৮৪.১৬,৪১.১৪ এবং ৫৬.৫৬ শতাংশ। কুমিল্লা বোর্ডের উত্তীর্ণ ১ লাখ ৮ হাজার ১১ জন পরীক্ষার্থীর মাঝে ৪ হাজার ৪’শ ৫০ জন জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। এরমাঝে বিজ্ঞাণ বিভাগ থেকে ৪ হাজার ৩’শ ৩৮ জন, মানবিক বিভাগ থেকে ৩০ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে ৮২ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। এ ছাড়া জিপিএ-৪ থেকে ৫ পেয়েছে বিজ্ঞাণ বিভাগ থেকে ২৩ হাজার ৫’শ ৪৩ জন,মানবিক বিভাগ থেকে ১ হাজার ৮’শ ৯৭ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে ৭ হাজার ৩’শ ৬৮ জন। মোট ৩২ হাজার ৮’শ ০৮ জন। জিপিএ-৩.৫ থেকে জিপিএ-৪ পেয়েছে বিজ্ঞাণ বিভাগ থেকে ৮ হাজার ৯’শ ৭৪ জন,মানবিক বিভাগ থেকে ৪ হাজার ৯’শ ৩৪ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে ১৩ হাজার ৭’শ ৫৮ জন। মোট ২৭ হাজার ৬’শ ৬৬ জন। জিপিএ-৩ থেকে সাড়ে ৩ পেয়েছে বিজ্ঞাণ বিভাগ থেকে ২ হাজার ৫’শ ১১ জন,মানবিক বিভাগ থেকে ৭ হাজার ৮’শ ১০ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে ১৪ হাজার ৯’শ ০৯ জন। মোট ২৫ হাজার ২’শ ৩০ জন। জিপিএ-২ থেকে জিপিএ-৩ পেয়েছে বিজ্ঞাণ বিভাগে ২’শ ৬৫ জন,মানবিক বিভাগে ৭ হাজার ৭’শ ৯০ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৯ হাজার ৫’শ ৪৯ জন। মোট ১৭ হাজার ৬’শ ০৪ জন। জিপিএ-১ থেকে জিপিএ-২ পেয়েছে বিজ্ঞাণ বিভাগে শূণ্য শতাংশ,মানবিকে ১’শ ৪৮ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষায় ১’শ ০৫ জন। মোট ২’শ ৫৩ জন। এবারে কুমিল্লা বোর্ডের অধীন ১ হাজার ৬’শ ৯৫ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৪ টি প্রতিষ্ঠাণ থেকে শতভাগ শিক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়। শতভাগ ফেল করে ২ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণ।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শিক্ষা বোর্ডের এক কর্মকর্তা জানান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে নির্বাচনী পরীক্ষায় অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার সুযোগ দেয়া হচ্ছে। রাজনৈতিক ও প্রভাবশালীদের তদবিরের কারণে এমন হচ্ছে। পাশের হার হ্রাসের পেছনে এটাও আরেকটি মূল কারণ।
 কুমিল্লা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কায়সার আহমেদ জানান- এ ফলাফল নিয়ে কুমিল্লা বোর্ড শংকিত নয়। নকলমুক্ত  পরীক্ষা নিতে আর গতবারের তুলনায় এবার পরীক্ষার খাতা মূল্যায়নে নজরদারী ছিলো বেশী। ফলাফল বিপর্যয়ের কারণ হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন-  বিদ্যালয় গুলোতে যেভাবে নজর দারি করা প্রযোজন বোর্ডের লোকবলের সংকটের কারণ তা হচ্ছেনা। তবে যেসব বিদ্যালয়গুলো খারাপ করেছে তাদের কাছ থেকে খারাপের কারণ ব্যাখা চাইবে বোর্ড। সেই সাথে  বিদ্যালয়ে টেস্ট পরীক্ষায় রেজাল্ট খারাপ করা শিক্ষার্থীদের ও এস.এসসি পরীক্ষায় সুযোগ দিয়েছে বিদ্যালয়গুলো এটা একটি কারণ বোর্ডের সামগ্রীক ফলাফলে।
বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ ৫ প্রাপ্ত এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘অনেক দিনের পরিশ্রমের ফসল আজকের এই ফল। এ পরিশ্রম শুধু আমার না, আব্বু-আম্মু আর আর শ্রদ্ধেয় শিক্ষক সবার। এই ফল আমার আগামি দিন চলার পথের অনুপ্রেরণা।’ স্কুলের সকল প্রধান শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যত সাফল্য কামনা করেন।
কুমিল্লা জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা রাশেদা আকতার বলেন- ভালো ফলাফলের জন্য মনিটরি জোরদারের ওপর গুরুত্বারোপ করেন প্রধান শিক্ষকেরা। সেই সাথে বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জবাব দিহিতার আওতায় আনতে হবে বলে তিনি জানান।





কুমিল্লায় গণিতে ৩৪ হাজার ৬৮৯ ও ইংরেজিতে ২৫ হাজার ৬০৬ জন অকৃতকার্য
এফএনএস (মোঃ হাবিবুর রহমান খান; কুমিল্লা) : কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডে ইংরেজি ও গণিতে খারাপ হওয়ার কারণে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে ভয়াবহ ফল বিপর্যয় হয়েছে। ফল বিপর্যয়ের পর বোর্ডে পাসের হার দাঁড়িয়েছে ৫৯ দশমিক শূন্য তিন। এক লাখ ৮২ হাজার পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছে এক লাখ আট হাজার ১১১ জন। পাশ করেছে ১ লাখ ৮ হাজার  ১শ ১১  জন। ফেল করেছে ৭৪ হাজার ৮ শ ৮৮ জন। শুধু গণিতে ফেল করেছে ৩৪ হাজার ৬৮৯ জন। আর ইংরেজিতে ফেল করেছে ২৫ হাজার ৬০৬ জন। যা বিরাট প্রভাব ফেলেছে পাশের হার হ্রাসের পেছনে। যার ফলে বিগত ৫ বছরের তুলনায় এবার পাশের হার কমেছে। এ বছর এ বোর্ডে পাশের হার মাত্র ৫৯ দশমিক ০৩ শতাংশ।  জিপিএ ৫ পেয়েছে ৪ হাজার ৪ শ ৫০ জন। দুটি স্কুল থেকে কেউ পাশ করেনি। এগুলো হলো চৌদ্দগ্রামের কাজী জাফর গালর্স হাই স্কুল ও পারে খোলা স্কুল।  গণিত ও ইংরেজি বিষয়ে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা ভাল ফলাফল করলেও ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা খারাপ করেছে। কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কায়সার আহমেদ গতকাল বৃহস্পতিবার  ঘোষিত এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল থেকে এ তথ্য জানা গেছে।
কুমিল্লা বোর্ড সূত্র জানায়, এ বছর এ বোর্ডে গণিত বিষয়ে পাশের হার ৮১ শতাংশ, যা গতবছর ছিল ৯২ শতাংশ এবং ইংরেজিতে পাশের হার ৮৬ শতাংশ, যা গতবছর ছিল ৯৪ শতাংশ।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শিক্ষা বোর্ডের এক কর্মকর্তা জানান, শহরের তুলনায় গ্রামের স্কুলগুলোতে গণিতের শিক্ষক সংকট রয়েছে। এ বছর শিক্ষার্থীরা গণিতে র্নৈবিক্তিক প্রশ্নে ভাল করলেও রচনামূলকে খারাপ করেছে। গ্রামের শিক্ষার্থীদের কাছে গণিত বিষয়টি দুর্বোধ হয়ে উঠেছে। ইংরেজি বিষয়েও গ্রামের শিক্ষার্থীরা দুর্বল। এতেও শিক্ষক সংকট রয়েছে। এ ছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে নির্বাচনী পরীক্ষায় অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার সুযোগ দেয়া হচ্ছে। রাজনৈতিক ও প্রভাবশালীদের তদবিরের কারণে এমন হচ্ছে। পাশের হার হ্রাসের পেছনে এটাও আরেকটি মূল কারণ।
এ বিষয়ে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কায়সার আহমেদ জানান, গণিত ও ইংরেজি বিষয়ে শিক্ষার্থীরা খারাপ ফলাফল করেছে। যার প্রভাব পড়েছে পাশের হারে। যে সব প্রতিষ্ঠান খারাপ ফলাফল করেছে তাদের বিষয়ে আমরা তদন্ত করবো।
উল্লেখ্য যে, এ বছর এ বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১ লক্ষ ৮৩ হাজার ৮০৬ জন। পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে ১ লক্ষ ৮২ হাজার ৯৭৯ জন। পাশের হার মাত্র ৫৯ দশমিক ০৩। এ বছর জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৪ হাজার ৪৫০ জন।




কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে কমেছে জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৪ হাজার ৪৫০ জন
এফএনএস (মোঃ হাবিবুর রহমান খান; কুমিল্লা) : কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় ফলাফল বিপর্যয়ের পাশাপাশি কমেছে জিপিএ ৫ এর সংখ্যাও কমেগেছে। এ বছর জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৪ হাজার ৪৫০ জন। এ ক্ষেত্রে ছেলেরা কিছুটা এগিয়ে রয়েছেন। ২ হাজার ২৯৭ জন ছেলে এবং ২ হাজার ১৫৩ জন মেয়ে জিপিএ ৫ পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৪ মে) সকাল ১০ টায় সারাদেশে এক যোগে এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করা হয়। জিপিএ-৫ প্রাপ্তির ক্ষেত্রে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা এগিয়ে রয়েছে। এ বিভাগে ৪ হাজার ৩৩৮ জন শিক্ষার্থী জিপিএ ৫ পেয়েছে। এর মধ্যে ২ হাজার ২৮১ জন ছেলে এবং ২ হাজার ৫৭ জন মেয়ে জিপিএ ৫ পেয়েছে। ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৮২ জন শিক্ষার্থী জিপিএ ৫ পেয়েছে। এর মধ্যে ১৪ জন ছেলে এবং ৬৮ জন মেয়ে জিপিএ ৫ পেয়েছে।
মানবিক বিভাগে ৩০ জন শিক্ষার্থী জিপিএ ৫ পেয়েছে। এর মধ্যে ২ জন ছেলে এবং ২৮ জন মেয়ে জিপিএ ৫ পেয়েছে। কুমিল্লা বোর্ড সূত্র জানায়, ২০১৬ সালে এ বোর্ডে ৬ হাজার ৯৫৪ জন, ২০১৫ সালে ১০ হাজার ১৯৫ জন, ২০১৪ সালে ১০ হাজার ৯৪৫ জন এবং ২০১৩ সালে ৭ হাজার ৮৫৫ জন শিক্ষার্থী জিপিএ ৫ পেয়েছিল। কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ জানায়, গণিত ও ইংরেজি বিষয়ে শিক্ষার্থীরা খারাপ ফলাফল করেছে। যার প্রভাব পড়েছে পাশের হার ও জিপিএ ৫ প্রাপ্তি হ্রাসের ক্ষেত্রেও। উল্লেখ্য যে, এ বছর এ বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১ লক্ষ ৮৩ হাজার ৮০৬ জন। পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে ১ লক্ষ ৮২ হাজার ৯৭৯ জন। পাশের হার মাত্র ৫৯ দশমিক ০৩। এ বছর জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৪ হাজার ৪৫০ জন।




কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে গত ৫ বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও ছেলেরা এগিয়ে
এফএনএস (মোঃ হাবিবুর রহমান খান; কুমিল্লা) : কুমিল্লা মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিকশিক্ষা বোর্ডে ২০১৭ সালের এসএসসি পরীক্ষায় এবার পাশের ৬৯দশমিক ০৩ শতাংশ। এবারে মোট ১ লাখ ৮২ হাজার ৯’শ ৭৯ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। উর্ত্তীর্ণ হয় ১ লাখ ০৮ হাজার ১১ জন। এ বছর এ বোর্ডে পাশের হার মাত্র ৫৯ দশমিক ০৩। যা ছেলে পাশের হার ৫৯ দশমিক ৫১ শতাংশ এবং মেয়ে পাশের হার ৫৮ দশমিক ৬৩ শতাংশ। যা গতবারের তুলনায় অনেক কম। ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী গত ৫বছরের ন্যায় এবারও মেয়েদের তুলনায় ছেলেরা এগিয়ে রয়েছে। গত ২০১৬ সালের এসএসসি পরীক্ষায় এবার পাশের হার ৮৪ শতাংশ। ছেলেদের পাশের হার ৮৫ দশমিক ২৩ শতাংশ এবং মেয়েদের পাশের হার ৮২ দশমিক ৯৫ শতাংশ। ২০১৫ সালে কুমিল্লা বোর্ডে পাশের হার ৮৪ দশমিক ২২ শতাংশ। এর মধ্যে  ওই সময় ছেলেদের পাসের হার ছিল ৮৬ দশমিক ১৪ শতাংশ ও মেয়েদের পাসের হার ৮২ দশমিক ৫৭ শতাংশ। ২০১৪ সালের  কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের  পাশের হার ছিল ৮৯ দশমিক ৯২ শতাংশ। এর মধ্যে ছেলে ৯২ দশমিক ০২ শতাংশ ও মেয়ে ৮৮ দশমিক ১৬ শতাংশ পাশ করেছে। ২০১৩ সালে পাশের হার ছিল ৯০ দশমিক ৪১ শতাংশ।  এর মধ্যে ছেলে ৯২ দশমিক ৫৬ শতাংশ ও মেয়ে ৮৮.৫৬ শতাংশ পাশ করেছে। চলতি বছরসহ ৫ বছরে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে এসএসসি বোর্ডের ফলাফল অনুযায়ী ছেলেরা এগিয়ে রয়েছে।



সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
 
A- A A+ Print this E-mail this
আপনার পছন্দের এলাকার সংবাদ
পড়তে চাই:
Fairnews24.com, starting the journey from 2010, one of the most read bangla daily online newspaper worldwide. Fairnews24.com has the highest journalist among all the Bangladeshi newspapers. Fairnews24.com also has news service and providing hourly news to the highest number of online and print edition news media. Daily more then 1, 00,000 readers read Fairnews24.com online news. Fairnews24.com is considered to be the most influencing news service brand of Bangladesh. The online portal of Fairnews24.com (www.fairnews24.com) brings latest bangla news online on the go.
৪৮/১, উত্তর কমলাপুর, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০
ফোন : +৮৮ ০২ ৯৩৩৫৭৬৪
E-mail: info@fns24.com
fnsbangla@gmail.com
Maintained by : fns24.net